ইনকোর্স পরীক্ষার নিয়ম ২০২২ ইনকোর্স পরীক্ষার প্রশ্ন, সাজেশন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আপনি একজন শিক্ষার্থী কিন্তু আপনি অনেক কিছুই এই বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত অজানা। তাই এই অজানা কিছু তথ্যের মধ্যে আমরা আজকে ইনকোর্স পরীক্ষা বিষয়ে কিছু তথ্য আপনাদের দিব। তাই ইনকোর্স পরীক্ষা সম্পর্কিত সঠিক তথ্য পেতে হলে আমাদের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

 জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ইনকোর্স পরীক্ষা সম্পর্কিত কিছু তথ্য:

অনেক শিক্ষার্থীদের মনে একটি প্রশ্ন থাকে, ইনকোর্স পরীক্ষা দিয়া কি বাধ্যতামূলক? না দিলে কি কোন সমস্যা আছে? এইরকম নানান প্রশ্ন শিক্ষার্থীদের মনে আসে,তবে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলছি, ইনকোর্স পরীক্ষা দেয়া অবশ্যই বাধ্যতামূলক, যারা অনার্স ডিগ্রি ও মাস্টার্স পরীক্ষার নিয়মিত ছাত্রছাত্রী তাদের জন্য ইনকোর্স পরীক্ষা বাধ্যতামূলক, যারা নিয়মিত ছাত্র ছাত্রী তারা ইনকোর্স পরীক্ষা না দিলে পরীক্ষার ফরম পূরণ করতে পারবে না। তাছাড়া ইনকোর্স পরীক্ষায় পূন মার্ক ২০ এবং বোর্ড পরীক্ষায় পূর্ণ মার্ক ৮০, কোন শিক্ষার্থী এই দুইটা মিলে পাশ না করতে পারলে বোর্ড পরীক্ষায় সেই শিক্ষার্থীর পরীক্ষার ফলাফল ফেল আসবে।

অনেক শিক্ষার্থীর মনে আরও একটি প্রশ্ন থাকে ইনকোর্স পরীক্ষায় কত পেলে পরীক্ষার্থীরা পাস করে। সেইসব শিক্ষার্থীর জানার উদ্দেশ্যে বলছি ইনকোর্স পরীক্ষায় ২০ মধ্যে কোন শিক্ষার্থী ৮ পেলে পাশ। আর বোর্ড পরীক্ষায় ৮০ মধ্যে ৩২ পেলে পাশ। সুতরাং বোর্ড পরীক্ষায় কোন শিক্ষার্থীকে পাস করতে হলে ১০০ মার্কে তাকে অবশ্যই ৪০ পেতে হবে। অনেকে আবার বলে নির্বাচন পরীক্ষায় ফেল করলে কোন সমস্যা হবে। হ্যাঁ কোন সমস্যা হবে না তবে ইনকোর্স পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর পাশ করাই লাগবে।

নির্বাচন পরীক্ষাটি হল, তুমি কেমন পড়াশোনা করছো, সেটা এই পরীক্ষার মাধ্যমে যাচাইবাছাই করা। এই পরীক্ষার নাম্বার কোন বোর্ডে যোগ হবে না। তবে ইনকোর্স পরীক্ষার নাম্বার বোর্ড যোগ হবে‌। সুতরাং ইনকোর্স পরীক্ষা তাই তোমাদের ভালোভাবে দিতে হবে। অনেক শিক্ষার্থী মনে করে মোট চারটি ইনকোর্স পরীক্ষা মধ্যে দুটি দিব আর দুটি দিব না সেসব শিক্ষার্থীদের জন্য বলছি, সেটা ডিপার্টমেন্ট শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলতে হবে, তবে কেউ যদি ইনকোর্স পরীক্ষা ইচ্ছা কৃত ভাবে না দেয়, তাহলে সেই শিক্ষার্থীর ফরম ফিল আপ করতে পারবে না। ওই ফরম ফিলাপের আগে শিক্ষার্থীর বিভাগে বসে তাকে আগে ইনকোর্স পরীক্ষায় দিতে হবে তারপরে সে ফরম ফিলাপ করতে পারবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ইনকোর্স পরীক্ষার নিয়ম:

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে সকল কোর্সের নিয়মিত ছাত্রছাত্রীদের জন্য ইনকোর্স পরীক্ষায় অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক। শিক্ষার্থীদের  মনে রাখতে হবে ইকোর্স পরীক্ষা ফাইনাল পরীক্ষার একটি অংশ। সাধারণত প্রতিটি বিষয়ের উপর ইনকোর্স পরীক্ষা হবে। আপনি বোর্ড পরীক্ষায় ৮০ ভিতরে ৩২ না পেলে আপনার ইনকোর্স পরীক্ষার নাম্বারটি যোগ হবে না। অন্যথায় আপনার ফলাফল ফেল আসবে। সুতরাং বিষয় ভিত্তিক পরীক্ষায় পাশ করতে হলে আপনাকে ৮০ মার্ক পাওয়াই লাগবে। আমরা সবাই জানি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চার ঘন্টা পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় কিন্তু ইনকোর্স পরীক্ষায় এত সময় থাকবে না।

সেখানে বিষয়ভিত্তিক অনুসারে 1 ঘণ্টার মতো সময় থাকবে। সাধারণত মূল বোর্ড পরীক্ষার আগ মুহূর্ত ইনকোর্স পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়, এই ইনকোর্স পরীক্ষার মাধ্যমে পরীক্ষার্থীর মূল বোর্ড পরীক্ষায় কেমন প্রস্তুতি সেই বিষয়ে শিক্ষকরা ধারণা পেয়ে থাকে, তাছাড়া একজন শিক্ষার্থী ও এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলে মূল পরীক্ষার অনেকটাই প্রস্তুতি ভালো হয়। তাছাড়া ইনকোর্স পরীক্ষা দিলে একজন শিক্ষার্থীর পড়াশোনার প্রতি মনোযোগী হয়। কারণ পরীক্ষা মানেই একজন শিক্ষার্থীর পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বেড়ে যায়। তাই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নিয়মিত সকল শিক্ষার্থীর ইনকোর্স পরীক্ষাটি  বাধ্যতামূলক করেছে।

তবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ইনকোর্সপরীক্ষাটি বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল, তবে এটি বাতিল হচ্ছে না বলে জানিয়ে দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৪ তম একাডেমী কাউন্সিলের সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ হয়। সভায় একাডেমিক কাউন্সিলের ৪৫ জন সদস্যের মধ্যে ৪৩ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন,অনলাইন প্লাটফর্ম জুম অ্যাপের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় সভাপতি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.মশিউর রহমান। সভায় ইনকোর্স পরীক্ষা পূর্ণবহাল থাকবে এরকম সিদ্ধান্ত হয়।