Assignment

Class 8 Science Assignment Answer 2021-৮ম শ্রেণীর বিজ্ঞান ১০০% সমাধান

Class 8 Science Assignment Answer- Are you searching Class 8 Assignment with solution. Then you are in best place. Because we provide all the assignment solution with accurate answer. So, you must read the article and get 100% accurate Assignment Answer.

Class 8th Assignment Question

Class 8 is the most important class in our educational journey. We face our 2nd board exam Junior School Certificate JSC Exam in this stage. So, the importance of class 8 grade is very high.

All of us know that the educational institutes are closed for Corona Virus. Even, it is unpredictable to say when the institutes will reopen. As a result students all over the country are facing a great trouble. They are far from their studies. Even, they are thinking about how the next class promotion will held. In this critical situation, the education ministry has decided a strict step. They have given assignment among the High School students.

Few days ago class 8 Assignment has published. According to the assignment we see that 3 Subjects are included in a weekend. On the 3rd weekend class 8 science subject has included into the assignment. Now it is time to show you the class 8 science assignment.

Class 8 Science Assignment Solution

We hope that all of you have collected the assignment. However, if anyone did not collect the assignment, they should collect it from our website. So, it is time to share the solution. Since you have only 6 days at your hand to solve the assignment, you must need the assignment answer.

Class 8 Science Assignment Solution (5th Week)

Class 8 Science is an important and very hard subject for the students. Because your next class is class 9 where you can choose Science Arts. So, the importance of the Science Subject is crying need. However, the students can not solve the question. For the purpose of the students we are going to share Class 8 Science Assignment answer only for you.

১. উত্তর :
অভিকর্ষজ ত্বরণ : বল প্রয়োগ করলে কোন বস্তুর বেগের পরিবর্তন হয়। প্রতি সেকেন্ডে যে বেগ বৃদ্ধি পায় তাকে ত্বরণ বলে। অভিকর্ষ বলের প্রভাবেও বস্তুর ত্বরণ হয়। এ তরণকে অভিকর্ষজ ত্বরণ বা মাধ্যাকর্ষণজনিত ত্বরণ বলা হয়। পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণ বিভিন্ন হওয়ার কারণ ব্যাখ্যা: যেহেতু বেগ বৃদ্ধির হারকে ত্বরণ বলে, সুতরাং অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত কোন বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ ত্বরণ বলে।

অভিকর্ষজ ত্বরণ কে g দ্বারা প্রকাশ করা হয়। যেহেতু অভিকর্ষজ ত্বরণ এক প্রকার ত্বরণ, এর একক হবে ত্বরণের একক অর্থাৎ মিটার/সেকেন্ড^২

ধরি, পৃথিবীর ভর =M, ভূপৃষ্ঠের বা এর নিকটে অবস্থিত কোন বস্তুর ভর =m, বস্তু ও পৃথিবীর কেন্দ্রের মধ্যবর্তী দূরত্ব =d
তাহলে মহাকর্ষ সূত্র অনুসারে অভিকর্ষ বল, F=GMm/d^2
আবার বলের পরিমাপ থেকে আমরা পাই, অভিকর্ষ বল = ভর X অভিকর্ষজ ত্বরণ
অর্থ্যাৎ , F=mg
উপরের দুটি সমীকরণ থেকে বলা যায়,
mg=GMm/d^2
বা, g= GM/d^2

এ সমীকরণের ডান পাশে বস্তুর ভর m অনুপস্থিত। সুতরাং অভিকর্ষজ ত্বরণ বস্তুর ভরের উপর নির্ভর করে না। যেহেতু G এবং পৃথিবীর ভর M ধ্রুবক, তাই g-এর মান পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে বস্তুর দূরত্ব d-এর উপর নির্ভর করে। সুতরাং g-এর মান বস্তু নিরপেক্ষ হলেও স্থান নিরপেক্ষ নয়। তাই বলা যায়, g-এর মানের ভিন্নতার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণ বিভিন্ন হয়।
যেহেতু বেগ বৃদ্ধির হারকে ত্বরণ বলে, সুতরাং অভিকর্ষ বলের প্রভাবে ভূপৃষ্ঠে মুক্তভাবে পড়ন্ত কোন বস্তুর বেগ বৃদ্ধির হারকে অভিকর্ষজ ত্বরণ বলে। অভিকর্ষজ ত্বরণ কে g দ্বারা প্রকাশ করা হয়। যেহেতু অভিকর্ষজ ত্বরণ এক প্রকার ত্বরণ, এর একক হবে ত্বরণের একক অর্থাৎ মিটার/সেকেন্ড^২।

ধরি, পৃথিবীর ভর =M, ভূপৃষ্ঠের বা এর নিকটে অবস্থিত কোন বস্তুর ভর =m, বস্তু ও পৃথিবীর কেন্দ্রের মধ্যবর্তী দূরত্ব =d। তাহলে মহাকর্ষ সূত্র অনুসারে অভিকর্ষ বল, F=GMm/d^2
আবার বলের পরিমাপ থেকে আমরা পাই, অভিকর্ষ বল = ভর X অভিকর্ষজ ত্বরণ
অর্থ্যাৎ , F=mg
উপরের দুটি সমীকরণ থেকে বলা যায়,
mg=GMm/d^2
বা, g= GM/d^2
এ সমীকরণের ডান পাশে বস্তুর ভর m অনুপস্থিত। সুতরাং অভিকর্ষজ ত্বরণ বস্তুর ভরের উপর নির্ভর করে না। যেহেতু G এবং পৃথিবীর ভর M ধ্রুবক, তাই g-এর মান পৃথিবীর কেন্দ্র থেকে বস্তুর দূরত্ব d-এর উপর নির্ভর করে। সুতরাং g-এর মান বস্তু নিরপেক্ষ হলেও স্থান নিরপেক্ষ নয়। তাই বলা যায়, g-এর মানের ভিন্নতার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণ বিভিন্ন হয়।
উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা পৃথিবীর বিভিন্ন স্থানে অভিকর্ষজ ত্বরণ বিভিন্ন হওয়ার কারণ সম্পর্কে জানতে পারলাম।

২. উত্তর :-

পৃথিবীতে আমার ভর ৫০ কেজি। চাঁদে আমার ওজন কমে যাওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করা হলো:

বস্তুর মধ্যে পদার্থের পরিমাণই হচ্ছে এর ভর। ভর হচ্ছে একটি ধ্রুবক রাশি যা ভূপৃষ্ঠে বা ভূপৃষ্ঠের উপরে বস্তুর অবস্থানের পরিবর্তনের সাথে পরিবর্তিত হয় না। অর্থাৎ, পৃথিবীতে আমার ভর ৫০ কেজি হলে চাঁদেও ভর ৫০ কেজিই থাকবে। বস্তুর ওজন বস্তুর মৌলিক ধর্ম নয়। কোন বস্তুর ওজন থাকতে পারে আবার নাও থাকতে পারে।
যেহেতু, বস্তুর ভর একটি ধ্রুব রাশি; সুতরাং বস্তুর ওজন অভিকর্ষজ ত্বরণ g এর উপর নির্ভর করে। যেসব কারণে অভিকর্ষজ ত্বরণের পরিবর্তন ঘটে সেসব কারণে বস্তুর ওজনও পরিবর্তিত হয়। ভূপৃষ্ঠ থেকে যত উপরে উঠা যায় বস্তুর ওজন তত কমতে থাকে। চাঁদের অভিকর্ষজনিত ত্বরণের মান পৃথিবীর প্রায় ১/৬ ভাগ। তাই, পৃথিবীতে আমার ভর ৫০ কেজি হলেও চাঁদে আমার ওজন কমে যাবে।
বি.দ্রঃ চাঁদে ১ কেজি ভরের বস্তুর ওজন হবে প্রায় ১.৬৩ নিউটন

৩. উত্তর :

একটি চকচকে কাঁচের গ্লাসে কিছু পানি নাও। এবার গ্লাসের মধ্যে একটি পাথর ফেলে দাও। এবার নিচের কাজগুলাে করা হলো :

i. গ্লাসের উপর দিয়ে পাথরটিকে সরাসরি দেখার চেষ্টা কর।
ii. কিছুটা তির্যকভাবে পাথরটিকে দেখার চেষ্টা কর।
iii. গ্লাসে যে পর্যন্ত পানি আছে তার একটু নিচ থেকে দেখার চেষ্টা কর।
তিনটি ক্ষেত্রে কী ঘটছে ও কেন ঘটছে? ব্যাখ্যা কর।
উপরোক্ত নির্দেশনার আলোকে কৃত কাজ:
i) গ্লাসের উপর দিয়ে পাথরটিকে সরাসরি দেখার চেষ্টা করায় পাথরটিকে ছোট, মোটা এবং উপরে দেখা যাচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।
ii) কিছুটা তীর্যকভাবে দেখলে পাথরটিকে অপেক্ষাকৃত ছোট মনে হয়।
iii) গ্লাসে যে পর্যন্ত পানি আছে তার একটু নিচ থেকে দেখলে মনে হয় পাথরের অবস্থানের পরিবর্তন হয়েছে।
তিনটি ক্ষেত্রেই তিন রকমের ঘটনা ঘটার কারণ হলো প্রতিসরণ।
ব্যাখ্যা: আলোক রশ্মি এক স্বচ্ছ মাধ্যম থেকে অন্য স্বচ্ছ মাধ্যমে তীর্যকভাবে প্রবেশ করলে দুই মাধ্যমের বিভেদ তলে এর দিক পরিবর্তিত হয়।
আলোকরশ্মির এই দিক পরিবর্তনের ঘটনাকে আলোর প্রতিসরণ বলে। হালকা মাধ্যমে আলোর বেগ বেশি আবার ঘন মাধ্যমে আলোর বেগ কম। তাই আলো যখন হালকা মাধ্যম হতে ঘন মাধ্যমে প্রবেশ করে তখন প্রতিসরিত রশ্মি অভিলম্বের দিকে এবং বিপরীতক্রমে আলো ঘন মাধ্যম হতে হালকা মাধ্যমে যাওয়ার সময় প্রতিসরিত রশ্মি অভিলম্ব হতে দূরে সরে যায়। আলোর দ্রুত বা ধীরে চলা নির্ভর করে ঐ মাধ্যমের আলোকীয় ঘনত্বের উপর।
অতএব মাধ্যমের ঘনত্বের ভিন্নতার কারণে আলো ভিন্ন মাধ্যমে এর গতিপথ পরিবর্তন করে। তাই বলা যায়, তিনটি ক্ষেত্রের ভিন্নতার কারণ হলো আলোর প্রতিসরণ।

ক) আইসােটোপ কাকে বলে?
খ) পারমাণবিক সংখ্যা বলতে কী বুঝ?
গ) উদ্দীপকের ছকে উল্লিখিত Z মৌলের ১ টি পরমাণুতে বিদ্যমান নিউট্রন সংখ্যা নির্ণয় কর
ঘ) উদ্দীপকের ছকে উল্লিখিত X ও Y মৌল দুটির পরমাণুসমুহের মধ্যে যৌগ গঠন সম্ভব- যুক্তিসহ বিশ্লেষণ কর:New-Microsoft-Word-Document-page-001

 

Class 8 Science Assignment Answer 2021 9th Week

The 9th week assignment has been published now on DSHE official website. We have added the full assignment solution. You must collect the answer from here.

1-page-007

তোমার প্রতিদিনের পর্যবেক্ষণ থেকে ব্যাপন ও অভিস্রবণ এর দুটি করে ঘটনা উল্লেখ করো ব্যাপন ও অভিস্রবণ প্রক্রিয়া থেকে যেকোন একটির জন্য পরীক্ষণ সম্পন্ন করে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি ধারাবাহিক ভাবে লিখ।
ব্যাপন এর বৈশিষ্ট্য। শ্রাবণ এর বৈশিষ্ট্য। ব্যাপন ও অভিস্রবণ এর পরীক্ষণ ছোলা পানিতে ভেজানো রান্নার গন্ধ ছড়িয়ে পড়া ফুড কালার পানিতে ছড়িয়ে পড়া এর বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ।

 

Muntasir Srabon

Muntasir Srabon is a student of Masters Of Arts from National University Of Bangladesh under Rajshahi College. During his graduation he has taken different types of courses on Writing Skills. He has a lots of experienced of managing several article publishing websites. Now he is working as a Freelance Writer for different international projects.

Related Articles

Back to top button