৯ম শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান ২০২১

৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের ২য় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট প্রকাশ করেছে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসব অ্যাসাইনমেন্ট উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরন করা হচ্ছে। 6 টি ধাপে ছয় সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট সমাপ্ত করা হবে।

৯ম শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট

নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলা একটি অত্যাবশ্যকীয় বিষয়. বিজ্ঞান বিভাগ হোক আর মানবিক বিভাগ সকল বিষয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের বাংলা সিলেবাসের অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আমরা আশা করছি আপনারা নবম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট হাতে পেয়েছেন. এখন আপনারা সেটা সমাধান করার চেষ্টা করছেন। যেহেতু ছাত্রছাত্রীরা হাতে কম সময়ে পেয়েছে তাই তাদের পক্ষে বই থেকে প্রশ্নের সমাধান খুঁজে বের করা অনেক সময়ের ব্যাপার। ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার জন্য আমরা নিয়ে আসলাম নবম শ্রেণীর বাংলা বিষয়ের অ্যাসাইনমেন্ট এর সমাধান।

৯ম শ্রেণীর বাংলা অ্যাসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান(৫ম সপ্তাহ)

ছাত্র-ছাত্রীর একটি নির্দিষ্ট সময় দেওয়া হয়েছে এই সময়ের মধ্যে অ্যাসাইনমেন্ট স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দেওয়া লাগবে। তাই ছাত্র ছাত্রী হাতে পর্যাপ্ত সময় নেই যদিও নুর্সেরি বলা হয়েছে যে ছাত্রছাত্রীরা কোন ধরনের গাইডবুক ব্যবহার করতে পারবে না। তাই আমরা আপনাদের বইয়ের আলোকে নবম শ্রেণির বাংলা এসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান করতে চেয়েছে।
আমরা কিছু অভিজ্ঞ শিক্ষকমন্ডলী দ্বারা আপনাদের এই প্রশ্নের সমাধান করেছি। আশা করছি প্রশ্নের সমাধান শতভাগ নির্ভুল হবে।
b-5
b-4
b-3
b-2
b-1

অ্যাসাইনমেন্ট শর্তাবলী

  • সংক্ষিপ্ত এই সিলেবাসের আলোকে ১ নভেম্বর (রোববার) থেকে শুরু হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের পাঠদান। এরপর সাপ্তাহিক অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে পরবর্তী শ্রেণিতে শিক্ষার্থীদের উত্তীর্ণ করার নির্দেশনা দিয়েছে শিক্ষাবোর্ড।
  • প্রতি সপ্তাহে একজন শিক্ষার্থী তিনটি অ্যাসাইনমেন্ট পাবে, যার উত্তর তাদের লিখতে হবে পাঠ্যপুস্তক অনুসরণ করে। নোট বা গাইড বই দেখা চলবে না এবং অন্যের লেখা নকল করেও অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া যাবে না।
  • শিক্ষার্থীকে প্রতি সপ্তাহে প্রত্যেক বিষয়ে একটি করে বাড়ির কাজ দিয়া হবে। প্রত‌্যেক বিষয়ে ৮ সপ্তাহে প্রস্তাবিত ৮টি কাজ সম্পন্ন করতে হবে। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের বিষয়ভিত্তিক কাজের মূল্যায়ন করবেন। এ কার্যক্রমে প্রত‌্যেক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণ নিশ্চিতসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে সব মূল‌্যায়নের তথ‌্য সংরক্ষণ করতে হবে।
  • পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচির ভিত্তিতে কোনো সপ্তাহে শিক্ষার্থীদের কী মূল্যায়ন করা হবে, সেই পরিকল্পনা ধরে নির্ধারিত কাজ বা অ্যাসাইনমেন্ট ঠিক করা হয়েছে। সপ্তাহের শুরুতে ওই সপ্তাহের জন্য নির্ধারিত অ্যাসাইনমেন্টগুলো দিয়ে দেওয়া হবে।
  • সপ্তাহ শেষে শিক্ষার্থীরা তাদের অ্যাসাইনমেন্ট শেষ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জমা দিয়ে নতুন কাজ বুঝে নেবে। অভিভাবক বা অন্য কারও মাধ্যমে বা অনলাইনে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া যাবে।
  • অ্যাসাইনমেন্টের আওতায় ব্যাখ্যামূলক প্রশ্ন, সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর, সৃজনশীল প্রশ্নের উত্তর, প্রতিবেদন প্রণয়নের মত কাজ রাখা হয়েছে শিক্ষার্থীদের জন্য।
  • সাদা কাগজে নিজের হাতে লিখে শিক্ষার্থীদের ওই অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে। অভিভাবক বা তার প্রতিনিধি স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রতি সপ্তাহে এক দিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে অ্যাসাইনমেন্ট সংগ্রহ করবেন এবং তা জামা দেবেন।
  • আর শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে নির্দেশনায় বলা হয়েছে, অ্যাসাইনমেন্টের কাজের জন্য পাঠ্যপুস্তক অনুসরণ করতে হবে; গাইড বই, নোট বই বা কেনা নোটের প্রয়োজন নেই।
  • মূল্যায়নের ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের নিজস্বতা, স্বকীয়তা, সৃজনীলতা যাচাই করা হবে। তাই অন্যের লেখা নকল করে জমা দিলে তা বাতিল করা হবে। নতুন করে সেই অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে হবে। অভিভাবকদেরও এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

The Author

Mehrab

Mehrab Hossain is a student of Masters Of Arts from National University Of Bangladesh under Rajshahi College. During his graduation he has taken different types of courses on Writing Skills. He has a lots of experienced of managing several article publishing websites. Now he is working as a Freelance Writer for different international projects.